লা লিগা দীর্ঘ ৯৩ দিন পর মাঠে

  • - । প্রকাশ : শনিবার, ১৩ জুন, ২০২০

লা লিগা দীর্ঘ ৯৩ দিন পর গত বৃহস্পতিবার মাঠে ফিরলেও বার্সেলোনা আর রিয়াল মাদ্রিদের অপেক্ষাটা আরেকটু দীর্ঘই হচ্ছিল। বার্সার অপেক্ষার প্রহর ঘুচে যাচ্ছে আজ রাতে, মায়োর্কার বিপক্ষে যখন মাঠে নামবেন লিওনেল মেসিরা। এদিকে রিয়াল মাদ্রিদ ফিরবে আরো এক দিন পর, আগামীকাল রাতে নিজেদের মাঠে তারা আতিথ্য দেবে এসডি এইবারকে।

চলতি লিগ মৌসুমের শুরু থেকেই বার্সেলোনা আর রিয়াল মাদ্রিদ, দুই দলই বেশ অধারাবাহিক। ২৭ ম্যাচদিবস শেষে দুই দলের যথাক্রমে ৫৮ আর ৫৬ পয়েন্ট সাক্ষ্য দিচ্ছে তারই। তবে পুরনো স্মৃতি পেছনে ফেলে নতুন করে শুরুর ব্যাপারে উদ্যমী কাতালানরা। দলের ডিফেন্ডার ক্লেমেন্ত লংলে জানান, অবশিষ্ট দুই শিরোপার জন্যে লড়াই চালু রাখবে দল।

তিনি বলেন, ‘বাকি দুই শিরোপা জেতার জন্যে লড়াই করে যাবো আমরা। তবে এজন্যে আমাদেরকে সেরা কাজটাই দেখাতে হবে।’ দিন চারেক আগে কোচ কিকে সেতিয়েন আর আর্তুরো ভিদালও জানিয়েছিলেন, শিরোপা জিততে হলে অবশিষ্ট ১১ ম্যাচেই ইতিবাচক ফল প্রয়োজন দলটির।

দর্শকহীন মাঠে খেলতে অভ্যস্ত না হলেও আপাতত এটা মেনে নিতে সমস্যা নেই বার্সার ফরাসি ডিফেন্ডারের। তিনি বলেন, ‘এটা এমন কিছু যা আমি পছন্দ করি না কিন্তু এখন ভক্তদের সামনে খেলাটা অসম্ভব।’ তবে দুয়ের পার্থক্যটা বিশাল থাকবে বলেই অভিমত দিলেন লংলে, ‘পরিপূর্ণ স্টেডিয়াম আর সে পরিবেশটা ছাড়া ফুটবল হবে ভিন্ন কিছুই। ভক্তদের সামনে খেলতেই স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি আমি। এমনকি এক-তৃতীয়াংশ হলেও।’

চলতি মৌসুমে প্রতিপক্ষের মাঠে দেদারসে পয়েন্ট খুইয়েছে বার্সা। আজ রাতের ম্যাচটাও ছিল প্রতিপক্ষের মাঠেই। লংলে মনে করেন, ফাঁকা গ্যালারি প্রতিপক্ষের মাঠে সুবিধাই করে দিতে পারে তাদের। সে ফায়দাটা তুলতে পারলে প্রায় তিন মাস পরে প্রথম ম্যাচটা জিততে খুব একটা সমস্যায় পড়তে হবে না কাতালানদের।

এদিকে বৃহস্পতিবার রাতে লা লিগার প্রত্যাবর্তনের ম্যাচে শেষ হাসিটা হেসেছিল সেভিয়া। নগর প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল বেতিসের বিপক্ষে গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর ৫৬ মিনিটে পেনাল্টি থেকে দলটিকে এগিয়ে দিয়েছিলেন লুকার ওক্যাম্পোস। এর মিনিট ছয়েক পর ফার্নান্দোর গোলে ভর করে ২-০ ব্যবধানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে সেভিয়া।

শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও খবর

ফেইসবুক পেজ

নামাজের সময় সূচি

  • ফজর
  • যোহর
  • আসর
  • মাগরিব
  • ইশা
  • সূর্যোদয়
  • ভোর ৪:৪৯
  • দুপুর ১১:৪৭
  • দুপুর ১৫:৪৯
  • সন্ধ্যা ১৭:২৯
  • রাত ১৮:৪৩
  • ভোর ৬:০১
কপিরাইট © 2019-2020 - দেশ প্রতিদিন সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত. ।
error: Content is protected !!