শিরোনাম
ঘোষিত সময়ের একদিন আগেই শিক্ষার্থীদের হল চালু বসুন্ধরা গ্রুপ আর্তমানবতার সেবায় সবসময় এগিয়ে থাকে- সাংসদ মাদানী বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে হলে সোনার মানুষ তৈরি করতে হবে -উপাচার্য ড. সৌমিত্র শেখর ত্রিশালে গার্মেন্টস শ্রমিকদের বিক্ষোভ; সমাধান না হলে কঠোর আন্দোলন নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ, সাক্ষাৎকার ৫ ও ৬ জানুয়ারি জাতীয় বিতর্ক প্রকিযোগিতায় জাককানইবি বিজয়ী ‘মুক্তিযুদ্ধের কবিতা: প্রত্যাশার ধ্বনি ও প্রতিধ্বনি’ শীর্ষক সেমিনার ত্রিশালে নজরুলের স্মৃতি বিজড়িত স্থান পরিদর্শনে জাককানইবি উপাচার্য মুরাদের বিরুদ্ধে মামলা নেওয়ার আবেদন বর্ণাঢ্য আয়োজনে পালিত হলো ব্লাড ডোনার্স সোসাইটি ভালুকা’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী

ময়মনসিংহে প্রেমিকের বাড়িতে ৩ দিন ধরে অনশন

  • আপডেট বুধবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১২৪ দেখেছে

ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে গত ৩ দিন যাবৎ অনশন করছে এক প্রেমিকা। অনশনরত ওই তরুণী ফুলপুর বঙ্গবন্ধু ডিগ্রি কলেজের ডিগ্রী প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে।

গত রবিবার দুপুর থেকে অনশন শুর করেন এই তরুণী। অন্যদিকে অনশনে বসার পর সাদ্দাম ও তার পরিবারের সদস্যরা বাড়ি থেকে পালিয়েছে। প্রতিবেশীরা জানান, মেয়েটি অনশন শুরু করার পর থেকে বাড়ির লোকজন বাড়িতে ফিরছে না।

জানা যায়, উপজেলার কামারগাঁও ইউনিয়নে ভেরুয়া গ্রামের আবুচানের ছেলে প্রেমিক সাদ্দাম হোসেন (২৬) পার্শবর্তী ফুলপুর উপজেলার রিয়াজ উদ্দিনের মেয়ে প্রেমিকা সুমনা (২২) সাথে দীর্ঘ দুই বছর আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পরিচয় হয় । পরে তাদের সম্পর্ক প্রেমে পরিণত হয়। এক পর্যায়ে দুজনের মধ্যে শারীরিক সম্পর্কও গড়ে উঠে। এরপর ওই তরুণীকে এড়িয়ে চলেন প্রেমিক সাদ্দাম হোসেন ।

এদিকে অভিযোগ করে ভুক্তভুগি তরুনী বলেন, দুই বছর আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমাদের পরিচয়। পরে ধীরে ধীরে সম্পর্ক প্রেমে পরিণত হয়। এরপর হঠাৎ করে আমার অমতে অন্য জায়গায় আমার বিয়ে হয়ে যায়। তবে বিয়ের পর সাদ্দাম আমাকে সেখানে একদিনও সংসার করতে দেয়নি। আমাকে বিয়ে করবে আশ্বস্ত করে এবং ওই স্বামীকে তালাক দিতে বলে। আমিও তার কথা মতো তাই করি। গত তিন মাসে বিভিন্ন সময় তার সঙ্গে আমার শারীরিক সম্পর্কও হয়েছে। এখন তাকে বিয়ের কথা বললে সে তার পরিবারের অজুহাত দেখিয়ে আমাকে এড়িয়ে চলে।

তরুণীর বাবা বলেন, সাদ্দাম আমার মেয়ের জীবনটা নষ্ট করে দিয়েছে। আমি তার কঠিন বিচার চাই।
এবিষয়ে তারাকান্দা থানার ওসি আবুল খায়ের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনাটি

গনমাধ্যমকর্মীদের কাছ থেকে শোনার পর ভিকটিমকে ওই বাড়ি থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। তবে ভিকটিমের পরিবার থেকে এ বিষয়ে কোন অভিযোগ করলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংক্রান্ত আরও খবর

ফেইসবুক পেজ

error: Content is protected !!