শিরোনাম
পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষে নির্মাণ শ্রমিকদের দিনব্যাপী মৌলিক প্রশিক্ষণ জেলা তথ্য অফিস কর্তৃক ৪০ তম বিসিএসে নবনিযুক্ত কর্মকর্তাবৃন্দকে সংবর্ধনা জামালপুর জেলা আ.লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন   ত্রিশালে কিশোর-কিশোরী ও নারী উন্নয়ন সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে মতবিনিময় সভা ইসলামপুরে অতিদরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচি কাজের শুভ উদ্বোধন  ত্রিশালে বিতর্ক প্রতিযোগিতা ও শিক্ষার্থীদের রান্না করা খাবার পরিবেশন  জাতীয় পার্টি ফুলবাড়ীয়া উপজেলা শাখার আহ্বায়ক কমিটি গঠিত জামালপুর ইসলামপুর বিনামূল্যে বীজ সার বিতরণ ও কৃষক সমাবেশ ত্রিশালে ভোক্তা অধিকারের অভিযান, ৫৫ হাজার টাকা জরিমানা মাওলানা ভাসানীর ৪৬তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

ত্রিশা‌লে ৭৬ হাজার শিশু‌ পে‌লো ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল

ফা‌তেমা শবনম
  • আপডেট সোমবার, ২০ জুন, ২০২২
  • ৫৬ দেখেছে

ময়মন‌সিং‌হের ত্রিশা‌লে ৭৬ হাজার ৫শ শিশু‌কে ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হ‌য়ে‌ছে। সারা দেশের ন্যায় চার‌দিন ব‌্যা‌পি ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল ক‌্যা‌ম্পেইন ত্রিশা‌লে ১৫ জুন থেকে শুরু ক‌রে চলে ১৯ জুন পর্যন্ত।

ত্রিশা‌ল উপ‌জেলায় ২৮৯ কেন্দ্রের মাধ‌্যমে দু’প্রকারের এই শক্তিশালী ক্যাপসুল খাওয়ানো হ‌য়ে‌ছে। এ কর্মসূচি সফলভাবে বাস্তবায়নের লক্ষ্যে চারদিন (বুধ, বৃহস্প‌তি, শ‌নি ও র‌বিবার) ক্যাম্পেইন চলে। প্রতি কে‌ন্দ্রে ২ জন স্বেচ্ছাসেবী দি‌য়ে সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালনের মাধ‌্যমে প্রতি‌দিন সকাল ৯টা থে‌কে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়া‌নো হয় ব‌লে র‌বিবার বিকা‌লে এসব তথ‌্য জানান ত্রিশাল উপ‌জেলা স্বাস্থ‌্য ও প‌রিবার প‌রিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ নজরুল ইসলাম।

তি‌নি আরও জানান, ভিটামিন ’এ’প্লাস ক্যাম্পেইন এর মাধ্যমে ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী শিশুদের একটি নীল রঙের ভিটামিন ’এ’ ক্যাপসুল এবং ১২ মাস থেকে ৫৯ মাস বয়সী শিশুদের ১টি করে লাল রঙের ভিটামিন ’এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হয়। এ উপ‌জেলায় ৬ থেকে ১১মাস বয়সী ৭ হাজার ৫শ জন শিশুকে নীল রঙের ভিটামিন ’এ’ প্লাস ক্যাপসুল এবং ১২ মাস থেকে ৫৯ মাস বয়সী ৬৯ হাজার শিশুকে লাল রঙয়ের ভিটামিন ’এ’ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হয়ে‌ছে। মোট ৭৬ হাজার ৫শ জন শিশু‌কে ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়া‌নো হয়ে‌ছে।

ডাঃ মোঃ নজরুল ইসলাম বলেন, ভিটামিন এ শুধু অপুষ্টিজনিত অন্ধত্ব প্রতিরোধই করে না বরং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে ডায়রিয়ার ব্যাপ্তিকাল ও জটিলতা দূর করে শিশু মৃত্যুর হার কমায়। শিশু মৃত্যুরোধে জন্মের পর নবজাতককে কেবল মায়ের শালদুধ পান করানো। এছাড়াও শিশুর বয়স ৬ মাস পূর্ণ হলে মায়ের দুধের পাশাপাশি ঘরে তৈরি সুষম খাবার খাওয়ানোর পরামর্শ দেওয়া হয় কেন্দ্রে আসা মা‌য়ে‌দেরকে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংক্রান্ত আরও খবর

ফেইসবুক পেজ

error: Content is protected !!