শিরোনাম
আর এম বি সি কল্যাণ সমিতি, এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা,র সাধারন সম্পাদক ও আওয়ামীলীগ নেতা সদ্য প্রয়াত সাইদুল ইসলাম খান পল স্বরণে আলোচনা, মিলাদ ও দোয়া ফুলবাড়িয়ায় জাতীয় পার্টি, র মহাসচিব এর রোগমুক্তি কামনায় মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত ফুলবাড়িয়ায় আ’লীগ শীর্ষ নেতাদেরকে অসম্মান করে মন্তব্য করেছেন বিএনপির চেয়ারম্যান ময়মন‌সিংহ বিভাগ সমিতি ঢাকা,র করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরন প্রতিবন্ধী দুই ছেলেকে বাঁচাতে মা-বাবার আকুতি ত্রিশালে বলাৎকারের অভিযোগে বড় হুজুর আটক আরেক দফা বাড়াছে বিধিনিষিধ, চুরান্ত কাল ত্রিশালে হারা‌নো সুমাইয়া প‌রিবা‌রে ফেরৎ ত্রিশা‌লে লকডাউন অমান‌্য করায় ১৬ জন‌কে জ‌রিমানা রাস্তা সংস্কারের দাবিতে ত্রিশালে মানববন্ধন

ত্রিশালে প্রাণিসম্পদ অফিসে হারুন-অর-রশিদ যোগদানে ব্যাপক সাফল্য

ম‌মিনুল ইসলাম ম‌মিন
  • আপডেট বৃহস্পতিবার, ১৫ জুলাই, ২০২১
  • ২৭ দেখেছে

ময়মনসিংহের ত্রিশালে প্রাণী সম্পদ ও ভেটেরিনারি হাসপাতালে ২০১৯ সনের সেপ্টেম্বর মাসে ডা: হারুন-অর-রশিদ যোগদানের পর ত্রিশাল উপজেলায় প্রাণি সম্পদের ব্যাপক উন্নয়ন তথা পরিবর্তন সাধিত হচ্ছে। উপজেলা ভেটেরিনারি হাসপাতালে যেখা‌নে চিকিৎসা বা পরামর্শের জন্য মানুষ তাদের পালিত হাস মুরগী , পাখি ও প্রাণি নিয়ে খুব কম আসত কিন্তু তিনি যোগদানের পর প্রতিদিন প্রায় দেড় শত থে‌কে ২শত খামারি হাসপাতাল থেকে নিয়মিত সেবা নিচ্ছেন এবং খামারিরা অত্যন্ত খুশি হাসপাতালের সেবা পেয়ে । খামারীরা বলেন ডঃ হারুন যোগদানের পর আমরা চিকিৎসা সেবা থেকে শুরু করে সকল ধরনের গবাদি প্রাণি, হাস মুরগীর টিকা পাচ্ছি ও খামার ব্যবস্থাপনা বিষয়ে বিভিন্ন পরামর্শ সেবা পাচ্ছি। ডঃ হারুন অর-রশিদ বলেন, মানুষের পুষ্টি চাহিদা পুরণের লক্ষে ও সরকারের এস ডি জি বাস্তবায়নের আলোকে বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ সহ দাপ্তরিক বিভিন্ন কাজ অত্যন্ত সুচারুভাবে ও নিষ্ঠার সাথে পালন করে যাচ্ছেন।

খোজ নিয়ে জানা যায় তিনি করোনায় ক্ষতিগ্রস্থ খামারীদের উৎপাদন অব্যাহত রাখার লক্ষে প্রানিসম্পদ এবং ডেইরি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় জেলার ত্রিশাল উপজেলার ২০ হাজার খামারির মধ্যে থেকে বাছাই করে ৪৪২৮ জন খামারীকে আর্থিক প্রনোদনা এনে দিয়েছেন। তিনি প্রনোদনা প্রাপ্ত খামারীর সঠিকভাবে যাচাই পূর্বক ODK APPS এর মাধ্যমে প্রকৃত খামারিদেরকে বাছাই করে তালিকা করেন। তিনি উপজেলার সদর ইউনিয়নের ছলিমপুর গাভী পালন সি আই জি ( কমন ইন্টারেস্ট গ্রপ ) কে ৭ লক্ষ টাকা ব্যায় করে একটি দুধ পাস্তুরাইজেশন প্ল্যান্ট স্থাপন করেন। ফলে উক্ত সি আই জির সদস্যরা তাদের উৎপাদিত দুধ পাস্তুরাইজড করার পর প্যাকেটজাত করে ত্রিশাল ও এবং পার্শ্ববর্তী উপজেলায় বিক্রয় করছেন । ফলে উক্ত এলাকার লোকজন পুষ্টি সমৃদ্ধ ও স্বাস্থ্য সম্মত দুধ পাচ্ছেন । তিনি পাঁচপাড়া গরু মোটা তাজা করণ সি আই জিতে ৫ লক্ষ টাকা ব্যায়ে ২ টি ঘাস কাটার মেশিন, ২ টি অটো ভ্যান, ১টি ফিড মিক্সিং মেশিন ও ১ টি ক্রাসিং মেশিন এন এ টি পি প্রকল্প থেকে ক্রয়ের ব্যবস্থা করে দেন । ফলে উক্ত সমিতি তাদের খামার ব্যায় অনেকাংশে কমিয়ে প্রাণি সম্পদ উৎপাদন অনেকগুণ বৃদ্ধি করেছেন। তিনি মঠবাড়ি এলাকার শহিদুল নামে এক উদোক্তাকে এন এ টিপি প্রকল্প থেকে ১২ লক্ষ টাকার একটি পিকাপ ভ্যান প্রদান করেন । বিগত রমজান মাসে জন সাধারণের ন্যায্য মূল্যে দুধ, ডিম, মাংস প্রাপ্তিতে এল ডি ডিপি প্রকল্পের সহায়তায় ভ্রাম্যমাণ মার্কেট চালু করেন। এতে সাধারণ জনগণ ন্যায্য মূল্যে তাদের প্রাণিজও পণ্য কিনে ব্যাপক উপকৃত হয়েছেন। নিয়মিত গবাদি প্রাণির টিকা প্রদান, কৃমি মুক্ত করণ ও খামারীদের খামার ব্যাবস্থাপনা বিষয়ে নিয়মিত পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন। ফলে ত্রিশাল উপজেলায় প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মাধ্যমে দুধ মাংস ডিম উৎপাদন ব্যাপক বৃদ্ধি পেয়েছে। এছাড়াও তার প্রচেষ্টায় উপজেলার বৈলর ইউনিয়নের কাজীর শিমলায় জাইকা প্রকল্পের অর্থায়নে ১০ লক্ষ টাকা ব্যায়ে একটি প্রাণি সেবা কেন্দ্র নির্মানাধীন। এটার নির্মাণ কাজ শেষ হলে উক্ত ইউনিয়নের খামারী প্রাণির প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা ও কৃত্রিম প্রজনন সেবা পাবেন। তাছাড়া তিনি উপজেলা পরিষদের এডিপির অর্থায়নে উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিস আঙ্গিনায় একটি প্রাণি চিকিৎসা কেন্দ্র স্থাপন করছেন। বর্তমানে তিনি অনলাইন কুরবানি পশুর ডিজিটাল হাটে খানারীদের বিক্রি যোগ্য প্রাণির ছবি আপ্লোড সহ খারড়ীদের সাহস যোগিয়ে যাচ্ছেন। এ বিষয়ে এলাকাবাসী, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা, খামারি ও হাসপাতালের আগতরা জানান উনার মত সৎ , দক্ষ ও দায়িত্ববান অফিসার পাওয়া আমাদের সৌভাগ্যের ব্যাপার। আমরা উনার সার্বিক সহযোগিতা প্রত্যাশা করি। যেন তার পরিশ্রমের মাধ্যমে
প্রাণিসম্পদ বিভাগের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে পারেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংক্রান্ত আরও খবর

ফেইসবুক পেজ

error: Content is protected !!