শিরোনাম
ঘোষিত সময়ের একদিন আগেই শিক্ষার্থীদের হল চালু বসুন্ধরা গ্রুপ আর্তমানবতার সেবায় সবসময় এগিয়ে থাকে- সাংসদ মাদানী বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে হলে সোনার মানুষ তৈরি করতে হবে -উপাচার্য ড. সৌমিত্র শেখর ত্রিশালে গার্মেন্টস শ্রমিকদের বিক্ষোভ; সমাধান না হলে কঠোর আন্দোলন নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ, সাক্ষাৎকার ৫ ও ৬ জানুয়ারি জাতীয় বিতর্ক প্রকিযোগিতায় জাককানইবি বিজয়ী ‘মুক্তিযুদ্ধের কবিতা: প্রত্যাশার ধ্বনি ও প্রতিধ্বনি’ শীর্ষক সেমিনার ত্রিশালে নজরুলের স্মৃতি বিজড়িত স্থান পরিদর্শনে জাককানইবি উপাচার্য মুরাদের বিরুদ্ধে মামলা নেওয়ার আবেদন বর্ণাঢ্য আয়োজনে পালিত হলো ব্লাড ডোনার্স সোসাইটি ভালুকা’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী

করোনায় মেক্সিকোতে মৃত্যুর মিছিল

  • আপডেট মঙ্গলবার, ২৩ জুন, ২০২০
  • ৯১ দেখেছে

ল্যাটিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল,চিলি, পেরুকে পেছনে ফেলে করোনায় একদিনের মৃত্যুর হিসেবে সবার উপরে উঠে এসেছে মেক্সিকো।গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে কোভিড-১৯ ভাইরাসে প্রাণহানি ঘটেছে ১ হাজার ৪৪ জনের। যা মঙ্গলবার পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী মৃত্যু রেকর্ডে সর্বোচ্চ।

গত কয়েক মাসের হিসেবে দেখা যাচ্ছে, ব্রাজিলে করোনা সংক্রামণ কিছুটা কম বেশি হলেও যুক্তরাষ্ট্রে একদিনের মৃত্যু সংখ্যা কমে ৩৬৩। যেখানে ব্রাজিলে ৭৪৮ জন এবং ভারতে ৩১২ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে।

অাক্রান্তের সংখ্যা তুলনামূলক কম হলেও সাউথ কোরিয়ায় করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় পর্যায়ের সংক্রমণ শুরু হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন দেশটির কর্মকর্তারা।

দেশটির রোগ নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রের (কেসিডিসি) প্রধান জাং ইউন-কেয়ং জানিয়েছেন, প্রথম পর্যায়ের সংক্রমণ এপ্রিল পর্যন্ত স্থায়ী হয়।মে মাস থেকে দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউলের নাইটক্লাবসহ আরও বেশ কিছু জায়গায় নতুন করে সংক্রমণ দেখা দেয়। এর আগে প্রতিদিনের শনাক্ত রোগীর সংখ্যা হাজারের কাছাকাছি থেকে কমে শূন্যতে এসে ঠেকেছিল।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, করোনাভাইরাসে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে বিশ্বের ৯১ লাখ ৮৭ হাজার ২৫৮জন। তাদের মধ্যে বর্তমানে ৩৭ লাখ ৯০ হাজার ৪৭৭ জন চিকিৎসাধীন এবং ৫৭ হাজার ৮৮৭ জন (২ শতাংশ) আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছে।

এ ছাড়া, করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে এখন পর্যন্ত ৪৯ লাখ ৩৭ হাজার ১৮১ জন সুস্থ হয়ে উঠেছে।

মহামারির চেয়েও ভয়ংকর রূপ নিয়ে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস গত ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের উহানে প্রথম শনাক্ত হয়।করোনাভাইরাস বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৩টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে।

গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংক্রান্ত আরও খবর

ফেইসবুক পেজ

error: Content is protected !!