শিরোনাম
পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষে নির্মাণ শ্রমিকদের দিনব্যাপী মৌলিক প্রশিক্ষণ জেলা তথ্য অফিস কর্তৃক ৪০ তম বিসিএসে নবনিযুক্ত কর্মকর্তাবৃন্দকে সংবর্ধনা জামালপুর জেলা আ.লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন   ত্রিশালে কিশোর-কিশোরী ও নারী উন্নয়ন সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে মতবিনিময় সভা ইসলামপুরে অতিদরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচি কাজের শুভ উদ্বোধন  ত্রিশালে বিতর্ক প্রতিযোগিতা ও শিক্ষার্থীদের রান্না করা খাবার পরিবেশন  জাতীয় পার্টি ফুলবাড়ীয়া উপজেলা শাখার আহ্বায়ক কমিটি গঠিত জামালপুর ইসলামপুর বিনামূল্যে বীজ সার বিতরণ ও কৃষক সমাবেশ ত্রিশালে ভোক্তা অধিকারের অভিযান, ৫৫ হাজার টাকা জরিমানা মাওলানা ভাসানীর ৪৬তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

করোনায় আক্রান্ত সাঁতারু আরিফুল ইসলাম

  • আপডেট শনিবার, ১৩ জুন, ২০২০
  • ১৫১ দেখেছে

আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির বৃত্তি নিয়ে ফ্রান্সে আছেন বাংলাদেশের সাঁতারু আরিফুল ইসলাম। সেখানেই তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। জানা গেছে, দিন কয়েক ধরেই তার প্রচণ্ড জ্বর এবং শরীরও প্রচন্ড ব্যথা। বেশ কয়েকবার বমি করেছেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

করোনাভাইরাসের উপসর্গ থাকায় সংশয়ে আছেন বাংলাদেশ নৌবাহিনীর এই সাঁতারু। এরই মধ্যে তিনি করোনা পরীক্ষা করতে দিয়েছেন; তবে এখনো ফল জানতে পারেননি।

আরিফুল বলেন, কয়েক দিন আগে সুইমিং ক্লাব থেকে ফেরার পর হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ি। কাঁপুনি দিয়ে জ্বর আসে। শরীরও প্রচণ্ড ব্যথা ছিল।

তিনি আরো বলেন, এরই মধ্যে এক রাতে জ্বর ওঠে ১০২ ডিগ্রি। আমার করোনা হয়েছে কি না, তা জানতে ডাক্তারের পরামর্শে পরীক্ষা করিয়েছি। এখনো সেটার ফল হাতে পাইনি। এখন অবশ্য একটু ভালো আছি। যদিও মুখে কোনো রুচি নেই। খাবার খেতে পারছি না। এখন ডাক্তারের পরামর্শ মেনে বাইরে বের হচ্ছি না।

ফ্রান্সের রুয়া শহর থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরের একটি গ্রামে থাকেন আরিফুল। সেখান থেকে পাবলিক বাসে চড়ে দ্য ভাইকিং রুয়েন ক্লাবে অনুশীলনে যেতে হয় তাকে।

অন্য দেশের দুজন সাঁতারুর সঙ্গে একই ডরমেটরিতে থেকে ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাস থেকে প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন তিনি।

আরিফুলের আশঙ্কা, গণপরিবহনে ওঠার কারণে হয়তো তার মধ্যে করোনার উপসর্গ দেখা দিয়েছে। তিনি বলেন, এখান থেকে শহরে যেতে হলে বাসে চড়তে হয়। তাছাড়া প্রায়ই আমি বাজার করতে শহরের দোকানে যাই। বুঝতে পারছি না কিভাবে জ্বর এসেছে। তবে এখন যেহেতু একটু ভালো আছি, আশা করছি কোনো সমস্যা হবে না।

তবে আরিফুল জানান, আমার অলিম্পিক বৃত্তির মেয়াদ আরো এক বছর বেড়েছে। টোকিও অলিম্পিক পিছিয়ে যাওয়ার কারণে আগামী বছর সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বৃত্তির মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন করেছিলাম। ওরা আমার আবেদনে সাড়া দিয়েছে। তাই আগামী বছর পর্যন্ত এখানেই থাকছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংক্রান্ত আরও খবর

ফেইসবুক পেজ

error: Content is protected !!