ঈশ্বরগঞ্জে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা শুভ্রের বিরুদ্ধে হত্যার হুমকির অভিযোগ

শরিফুল ইসলাম, ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) থেকে
  • আপডেট শুক্রবার, ১২ মে, ২০২৩
  • ৭১ দেখেছে

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে এক স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ, বাড়ি-ঘর, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়িয়ে দেওয়া এবং কুপিয়ে হত্যার হুমকির অভিযোগ উঠেছে আরেক স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতার বিরুদ্ধে। এ নিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক মো . সাইফুল ইসলাম ভূঁইয়া বাদী হয়ে সাবেক আরেক যুগ্ম আহ্বায়ক ও উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব কাজী জিয়াউল হক শুভ্রের বিরুদ্ধে ঈশ্বরগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জেরে সাইফুল ইসলামের মুঠোফোনে ফোনকরে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজের একপর্যায়ে তাঁর বাড়ি-ঘরসহ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আগুনে পুড়িয়ে এবং তাঁকে কুপিয়ে হত্যার হুমকিদেন শুভ্র। রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জেরেই এ ধরনের হুমকি দিয়েছেন বলে দাবি করছেন মো . সাইফুল ইসলাম।

এ ছাড়াও সাইফুল ইসলামকে শুভ্রের হুমকি এবং অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজের একটি অডিও রেকর্ড হাতে আসে। সেখানে শোনা যায় সাইফুল ইসলামের মাকে তুলে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করছে কাজী জিয়াউল হক শুভ্র। শুধু তা-ই নয়, সাইফুল ইসলামের বাড়ি -ঘর, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আগুনে পুড়িয়ে দেওয়াসহ তাঁকেও কুপিয়ে হত্যার হুমকি দেন শুভ্র।

শুভ্রের এমন কর্মকাণ্ডের অডিও রেকর্ড উপজেলা আওয়ামীলীগ, স্বেচ্ছাসেবক -লীগসহ অন্যান্য সহযোগী সংগঠনের নেতাদের কাছে ছড়িয়ে গেলে তাঁরাও ক্ষুব্ধ হন শুভ্রের প্রতি। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা বলেন, ‘সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটিতে শুভ্রকে সদস্য সচিব করার পর থেকেই বেপোরয়া হন শুভ্র। তাকে এই পদ থেকে বহিষ্কারের পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থার দাবি জানান নেতারা।

এর আগে গত (৬ মে) ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের কমিটি বিলুপ্তকরে সম্মেলন প্রস্তুতির কমিটির অনুমোদন দেনময়মনসিংহ জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ। এতে সাবেক উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক -লীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক এ.এইচ.এম সাইফুল ইসলামকে আহ্বায়ক এবং কাজী জিয়াউল হক শুভ্রকে সদস্য সচিব করা হয়।

এ বিষয়ে মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘ রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জেরে এর আগেও বেশ কয়েকবার সে আমাকে বিভিন্নভাবে হুমকি-ধমকি দিয়েছে। মানসম্মানের কথা চিন্তাকরে বিষয়টি কারোর কাছে শেয়ার করিনি। কিন্তু ওইদিন রাত পৌনে একটার দিকে সে আমাকে ফোন দিয়ে আমার মাকে তুলে খুব অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে। শুধু তা-ই নয়, আমার বাড়ি-ঘর, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়িয়ে দিবে এবং খুন করে ফেলবে বলে হুমকি দেয়। পরে বিষয়টি আমি আমার মোবাইলে রেকর্ড করে রেখেছি।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত শুভ্রের মন্তব্য জানতেতাঁর মুঠোফোনে একাধিকবার কল দেওয়া হলেও মোবাইলটি বন্ধ পাওয়া যায়। যেকারণে তাঁর মন্তব্য দেওয়া সম্ভব হয়নি।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পিএসএম মোস্তাছিনুর রহমান বলেন, ‘ এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে’।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংক্রান্ত আরও খবর

ফেইসবুক পেজ

error: Content is protected !!