চট্টগ্রামপরিবেশবাংলাদেশশীর্ষ খবরসর্বশেষ

ইপিজেড এলাকায় সিডিএ’র চোখ ফাঁকি দিয়ে ইসলাম ম্যানশনে চলছে ধসে যাওয়া বিল্ডিং এর নির্মান কাজ

নিজস্ব প্রতিবেদক: নগরীর ইপিজেড থানাধীন ৩৮নং ওয়ার্ড, বন্দর থানার ব্যারিষ্টার কলেজ সড়কের বিপরীতে, রবি অফিসের পাশে এবং ডাচ বাংলা ব্যাংক এর দ্বিতীয় তলা ইসলাম ম্যানশনে রাতের আধারে ধসে যাওয়া বিল্ডিং এর পুনঃনির্মান কাজ চলছে।

এই বিল্ডিং এর মালিক মো: ইলিয়াছ তিনি প্রসাশন ও সিডিএ এর চোখকে ফাঁকি দিয়ে রাতের আধারে ধসে যাওয়া বিল্ডিং এর পুনঃনির্মান কাজ করছে। এই ইসলাম ম্যানশন যেকোনো মুহুর্তে দুর্ঘটনার শিকার হতে পারে এবং দুর্ভোগে পড়তে পারে ইসলাম ম্যানশনের জনবহুল ভাড়াটিয়ারাও।

ভাড়াটিয়ারা চলে যাওয়ার জন্য বের হলে মো: ইলিয়াছ বলেন, আমার বিল্ডিং এ কোনো সমস্যা নেই বলে ভাড়াটিয়াদেরকে বাসা না ছাড়ার জন্য এসব কাজ করে আসছে এই ইলিয়াছ।

এই ইসলাম ম্যানশনের ৬তলাতে চলছে গরুর খামার এবং বড় বড় মুূগীর খামারও রয়েছে। বর্তমানে এই ইসলাম ম্যানশনটি ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। ভবনের বিদ্যুতের মিটারের সাথে রয়েছে গ্যাসের বোতল। সেখানে নেই কোন অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র, যেকোনো সময় দুর্ঘটনার শিকার হতে পারে এই ইসলাম ম্যানশনের ভাড়াটিয়াসহ এখানকার বড় বড় ব্যবসায়ীরা।

বিষয়টি গণমাধ্যমকর্মীরা জানতে চাইলে গণমাধ্যমককর্মীদের বিভিন্নভাবে হুমকি ও অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করেন এই ইলিয়াছ। তিনি বলেন, তোদের মত গণমাধ্যমকর্মী আমার পকেটে থাকে।

বিশেষ সূত্রে জানা যায়, এই ইসলাম ম্যানশনের মালিক ইলিয়াছ গণমাধ্যমকর্মীরা যদি এই ইসলাম ম্যানশনের কোন নিউজ পাবলিশ করে, তাহলে গণমাধ্যমকর্মীদের নাকি ডিবি গোয়েন্দা পুলিশ এবং র্যাবকে দিয়ে গণমাধ্যমকর্মীদেরকে ভুয়া বলে শনাক্ত করবে।

এই ইসলাম ম্যানশন বিল্ডিংটি বিগত অনেক বছর আগে মেয়াদ শেষ হয়েছে বলে জানা গেছে।

এই ইসলাম ম্যানশনটি যেকোনো মুহুর্তে দুর্ঘটনায় পরতে পারে, বিষয়টি সিডিএ’র চেয়ারম্যানকে সুদৃষ্টি রাখার একান্তেই প্রয়োজন বলে মনে করছেন এলাকাবাসী।

ইসলাম ম্যানশনের মালিক, ইলিয়াছ এর ফোন নাম্বার ০১৮১৯৩১০১০৩

Comment here