বাগেরহাটে উগ্রবাদ-জঙ্গীবাদ সহিষ্ণু এলাকা সৃষ্টির অভিজ্ঞতা বিনিময় শীর্ষক সভা

মোঃ মিরাজুল শেখ, বাগেরহাট থে‌কে
  • আপডেট বৃহস্পতিবার, ৩১ মার্চ, ২০২২
  • ১৫ দেখেছে

২০২০ সাল থেকে দি হাঙ্গার প্রজেক্ট ও প্রশিক্ষিত তরুণ স্বেচ্ছাব্রতীরা বাগেরহাট জেলার তিনটি উপজেলার ২৬ টি ইউনিয়নে ‘উগ্রবাদ-জঙ্গীবাদ সহিষ্ণু এলাকা’ সৃষ্টির উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

তারই অভিজ্ঞতা বিনিময়ের লক্ষ্যে ৩১ মার্চ ২০২২ বৃহষ্পতিবার সকাল ১১টা৩০ মিনিটে বাগেরহাট জেলা প্রশাসকের সন্মেলন কক্ষে দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশের উদ্যোগে একটি অভিজ্ঞতা বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত জার্মান আ্যম্বাসিডর আখিম ট্রোস্টার, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জার্মান রাষ্ট্রদূতের সহধর্মীণি উপদেষ্টা বেটিনা ট্রোষ্টার। দি হাংগার প্রজেক্টের কান্ট্রি ডিরেক্টর ড. বদিউল আলম মজুমদারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাগেরহাট জেলার জেলা প্রশাসক মো. আজিজুর রহমান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জার্মান আ্যম্বাসিডর আখিম ট্রোষ্টার বলেন, আমার দেশে ৮০ বছর আগে ধর্মীয় উগ্রবাদের কারনে ধ্বংসের দ্বার প্রান্তে পৌঁছে গিয়েছিলো, বাংলাদেশ যেনো এমনটি না হয়। আমি এ প্রকল্পের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলের কথা শুনে অভিভূত হয়েছি এবং জার্মান সরকার এমন একটা প্রকল্পের সাথে থাকতে পেরে গর্বিত।

জেলা প্রশাসক তার বক্তব্যে বলেন, আমরা সকলের সাথে কাজ করছি যাতে করে বাগেরহাট সম্পূর্ণ জঙ্গিমুক্ত হবে। তিনি আরও বলেন, ব্রেইভ প্রকল্প বাগেরহাটে একটা বড় তরুন প্লাটফর্ম তৈরি করেছে, যা এ জেলাকে সম্প্রীতির জেলা হিসেবে তৈরি করতে কাজ করছে। তাই এ জেলায় সাম্প্রতিক ধর্মীয় উত্তেজনার সময় এখানে সকল ধর্মের ভিতর সহনশীল একটা অবস্থা বিরাজ করছে। এটা তৈরিতে ব্রেইভ প্রকল্প জেলা প্রশাসনকে যথেষ্ট সহযোগীতা করেছে।

পরবর্তীতে জার্মান অ্যাম্বাসেডর ব্রেইভ প্রকল্পের প্রায় ৩০০ তরুনদের সাথে অভিজ্ঞতা বিনিময় করার জন্য জেলা পরিষদের অডিটোরিয়াম যান এবং ইউথদের কাছ থেকে ব্রেভ প্রকল্পের বিভিন্ন বিষয়ে জানতে পেরে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংক্রান্ত আরও খবর

ফেইসবুক পেজ

error: Content is protected !!