পিরোজপুরে বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন বিল পাসে নাজিরপুরে সর্বস্তরের বিজয় উল্লাস

শামসুল আরেফিন, নাজিরপুর (পিরোজপুর) থে‌কে
  • আপডেট শুক্রবার, ১ এপ্রিল, ২০২২
  • ৬১ দেখেছে

উপকূলীয় অঞ্চলে উচ্চশিক্ষা প্রসারের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পিরোজপুরে উপহার দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বিলটি পাশের জন্য মহান জাতীয় সংসদে উত্থাপিত হলে তা চূড়ান্ত আইন আকারে পাস হয়। আর এর মধ্য দিয়ে বাস্তবায়ন হলো পিরোজপুর বাসির দীর্ঘদিনের লালিত স্বপ্ন। পিরোজপুরে জাতির জনকের নামে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় পাস হওয়ায় নাজিরপুর উপজেলাবাসীর মনে আনন্দ।

এ উপলক্ষে শুক্রবার বিকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপিকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়ে নাজিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, কৃষকলীগ, সাংবাদিক, সুশীল সমাজ বিজয় উল্লাস ও আনন্দ মিছিল করেন। এতে নেতৃত্ব দেন উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান শেখ মোস্তাফিজুর রহমান রঞ্জু, মুক্তিযোদ্ধা এস এম নজরুল ইসলাম বাবুল, জেলা পরিষদ সদস্য সুলতান মাহমুদ খান ও তিমির হালদার তুহিন, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক চঞ্চল কান্তি বিশ্বাস, সেখমাটিয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আতিয়ার রহমান চৌধুরী নান্নু, দীর্ঘা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান শাহ আলম আকন, ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক আল আমিন, শ্রীরামকাঠী ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি মিজানুর রহমান মিঠু, কলারদোয়ানিয়া ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক তারিকুল ইসলাম (সুমন) প্রমুখ। জানাগেছে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম পিরোজপুর ১ সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে পিরোজপুরে একটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের জন্য মন্ত্রীর নিকট

২০১৯ সালের জুলাই মাসে একটি আবেদন করেন।২০১৯ সালের ১০ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন দিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় কে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার প্রেক্ষিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ২০১৯ সালের ২৭ অক্টোবর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনের খসরা প্রণয়নের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান কে চিঠি দেন। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন ২০২০ সালের ২৩ মার্চ আইনের খসরা পাঠান শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে।২০২০ সালের ১৬ জুলাই খসরা আইনের উপর মতামত দিতে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়কে চিঠি দেয়।২০২০ সালের ২৯ নভেম্বর শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে আইনের খসরা পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য পত্র দেওয়া হয়। ২০২০ ১৬ ডিসেম্বর মন্ত্রী পরিষদ বিভাগ থেকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা পূর্বক শিক্ষা মন্ত্রণালয় পাঠিয়ে মন্ত্রিপরিষদে উত্থাপনের জন্য চিঠি দেওয়া হয়। ২০২১ সালের ৫ সেপ্টেম্বর অর্থ মন্ত্রণালয় প্রয়োজনীয়তা যাচাই-বাছাই শেষে মহামান্য রাষ্ট্রপতির সুপারিশ নিয়ে সংসদে উত্থাপনের জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয় কে চিঠি দেয়। আইন মন্ত্রণালয়ের আইন মন্ত্রণালয়ের ভোটিং হয় এবং প্রধানমন্ত্রী এবং মহামান্য রাষ্ট্রপতি স্বাক্ষর করে বিলটি সংসদে উত্থাপনের অনুমোদন দেন। ১৮ নভেম্বর ২০২১ তারিখে বিলটি উত্থাপিত হলে সংসদের স্থায়ী কমিটির নিকট প্রেরন করার জন্য অনুমোদন হয়। বিলটি আইনে আকারে পাস এর জন্য ২৯ মার্চ ২০২২ সংসদে উত্থাপিত হয় এবং পাস হয়। মঙ্গলবার শিক্ষা মন্ত্রী ডা. দীপু মনি বিলটি সংসদে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বিল- ২০২২ পাশের জন্য সংসদে উত্থাপন করেন। এদিকে, পিরোজপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বিল পাস হওয়ায় নাজিরপুর উপজেলাবাসীর মনে আনন্দ। পিরোজপুরে এই বিশেষায়িত বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার মধ্য দিয়ে পিরোজপুর সহ উপকূলীয় অঞ্চলের লক্ষ লক্ষ শিক্ষার্থীর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নির্ভর শিক্ষার ঢাল উন্মোচিত হলো। পিরোজপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, শিক্ষা মন্ত্রী দীপু মনি, এবং পিরোজপুর ১ আসোনের এমপি মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ সহ ধন্যবাদ জানান নাজিরপুর উপজেলাবাসী। পিরোজপুর জেলার ইতিহাসে এ পর্যন্ত যত কাজ হয়েছে তার মধ্যে এটি একটি সর্বশ্রেষ্ঠ কাজ। আমরা নাজিরপুরবাসী কৃতজ্ঞতা জানাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি। ধন্যবাদ জানাই মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম কে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংক্রান্ত আরও খবর

ফেইসবুক পেজ

error: Content is protected !!