শিরোনাম
আর এম বি সি কল্যাণ সমিতি, এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা,র সাধারন সম্পাদক ও আওয়ামীলীগ নেতা সদ্য প্রয়াত সাইদুল ইসলাম খান পল স্বরণে আলোচনা, মিলাদ ও দোয়া ফুলবাড়িয়ায় জাতীয় পার্টি, র মহাসচিব এর রোগমুক্তি কামনায় মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত ফুলবাড়িয়ায় আ’লীগ শীর্ষ নেতাদেরকে অসম্মান করে মন্তব্য করেছেন বিএনপির চেয়ারম্যান ময়মন‌সিংহ বিভাগ সমিতি ঢাকা,র করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরন প্রতিবন্ধী দুই ছেলেকে বাঁচাতে মা-বাবার আকুতি ত্রিশালে বলাৎকারের অভিযোগে বড় হুজুর আটক আরেক দফা বাড়াছে বিধিনিষিধ, চুরান্ত কাল ত্রিশালে হারা‌নো সুমাইয়া প‌রিবা‌রে ফেরৎ ত্রিশা‌লে লকডাউন অমান‌্য করায় ১৬ জন‌কে জ‌রিমানা রাস্তা সংস্কারের দাবিতে ত্রিশালে মানববন্ধন

ত্রিশালের বাগান ইসলামীয়া আলিম মাদ্রাসায় জোর পূর্বক ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্বে

  • আপডেট রবিবার, ১২ জুলাই, ২০২০
  • ৮৩ দেখেছে

ময়মনসিংহ ত্রিশালের বাগান ইসলামীয়া আলিম মাদ্রাসায় নূরজাহান আক্তারের বিরুদ্ধে জোর পূর্বক ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তর ও জেলা প্রশাসক ময়মনসিংহ কার্যালয়ের শিক্ষা ও আইসিটি শাখার স্মারক নির্দেশনা মোতাবেক মাদ্রাসা পরিচালনায় যে অব্যবস্থাপনা সৃষ্টি হয়েছে তার জন্য প্রভাষক নূরজাহান আক্তারকে বিধি বহির্ভূতভাবে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করাকে ইতিমধ্যে চিহ্নত করা হয়। প্রতিষ্ঠানের আয়ের ফান্ড তছরুপ সহ শিক্ষকদের বেতন ভাতা আটকে দেওয়া, প্রাপ্ত বেতন ভাতা হতে উৎকোচ হিসাবে আংশিক কেটে নেয়া, ব্লেকমেইল ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করে সাদা কাগজে স্বাক্ষর নেওয়া সহ অসংখ্য দূর্নীতি অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে এই নারী প্রভাষক নূরজাহান আক্তারের বিরুদ্ধে।

নূরজাহান আক্তারের অদৃশ্য শক্তি বলয়ের হাত থেকে প্রতিষ্ঠানকে রক্ষা করতে ও মাদ্রাসা সুষ্ঠ পরিচালনার পরিবেশে ফিরিয়ে আনার লক্ষে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ত্রিশাল ময়মনসিংহ ০৬ জুলাই ২০২০ইং ০৫.০৪.৬১৯৪.০১৪.০১.০০২.১৯-৩৬৫ স্মারকে ৩ (তিন) কার্যদিবসের মধ্যে জ্যেষ্ঠ সহকারী অধ্যাপক/প্রভাষকের নিকট ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব প্রদান ও মাদ্রাসার পাসওয়ার্ড হস্তান্তর করার জন্য একটি নির্দেশনা প্রদান কারেন।

সচেতন মহলের দাবী দূর্নীতি পরায়ন ও কুচক্রী মহলের যোগ সাজসে স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠানটির ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন ও ক্ষতি সাধনের হীনতায় লিপ্ত রয়েছে নূরজাহান আক্তার।

প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় এ বিষয়ে অভিযুক্ত প্রভাষক নূরজাহান আক্তারের সঙ্গে মোঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে ফোন রিসিভ না করায় কথা বলা সম্ভব হয়নি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোস্তাফিজুর রহমানের কাছে বিষয়টি জানতে চাইলে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরবর্তীতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংক্রান্ত আরও খবর

ফেইসবুক পেজ

error: Content is protected !!