শিরোনাম
ত্রিশাল পৌরসভার মেয়র পদে আমিন সরকারের বিজয় চাঞ্চল্যকর ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি সোহেল গ্রেফতার ময়মনসিংহে ২ কেজি গাঁজাসহ একজন গ্রেফতার জাককানইবি সাংবাদিক সমিতির সভাপতি ফাহাদ, সম্পাদক আসলাম জাতীয় সংসদ নির্বাচন ৭ জানুয়ারি আজ সন্ধ্যা ৭টায় সিইসির ভাষণের মাধ্যমে তফসিল ঘোষণা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে আফ্রিকার প্রাণী নীলগাই, জেব্রা ও কমনইল্যান্ড পরিবারে যুক্ত হলো পাঁচ নতুন ত্রিশালের সাখুয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি রিফাত ও সম্পাদক রিজন জয়পুরহাটের কালাইয়ে বর্ণাঢ্য আয়োজনে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালিত অধিকার নেতৃবৃন্দের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে ময়মনসিংহে মৌন মানববন্ধন

গৃহবধূ নির্যাতনের প্রধান আসামিসহ আটক ৪

  • আপডেট সোমবার, ৫ অক্টোবর, ২০২০
  • ৩৭৩ দেখেছে

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের পূর্ব একলাশপুরে এক গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে যৌন নির্যাতন ও ধর্ষণের চেষ্টা করার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করার ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয় বখাটে একদল যুবক ওই নারীর বাবার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটান বলে জানা গেছে। তারা ওই গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে ভিডিও চিত্র ধারণ করে মোটা অংকের টাকা দাবি করে আসছিল। পরে টাকা দিতে না পারায় ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হয়। আর সেই ভিডিও ভাইরাল হলে এ নিয়ে শুরু হয় চাঞ্চল্য। এ দিকে ঘটনার এক মাস পরে এটি প্রকাশ্যে আসায় প্রধান আসামিসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে আইন শৃংখলা বাহিনী।

জানা গেছে, চাহিদা অনুযায়ী টাকা না পেয়ে গতকাল বিকালের দিকে (ঘটনার ৩২ দিন পর) গৃহবধূকে নির্যাতনের ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে প্রকাশ করা হয়। প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গে তা ভাইরাল হয়ে যায়। যা দেখে টনক নড়ে স্থানীয় প্রশাসনের। যদিও এ ঘটনা এতদিন অগোচরেই ছিল স্থানীয় এলাকাবাসী ও পুলিশ প্রশাসনের।

গতকাল রোববার দিবাগত রাতে মামলার প্রধান আসামি বাদলকে ঢাকা থেকে এবং আরেক আসামি দেলোয়ারকে নারায়ণগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

এছাড়া স্থানীয় পুলিশ বাহিনী গতকাল রাতে আরও ২ জনকে আটক করেছে। আটককৃতরা হলো- মোঃ রহীম (২৭) ও আবদুর রহমান (৩০)। রহীম ও রহমান একলাশপুর ইউনিয়নের পূর্ব একলাশপুর গ্রামের বাসিন্দা।

এবিষয়ে নোয়াখালী জেলা পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জানান, ফেইসবুকে ভিডিওটি দেখার পরই আমরা ভিক্টিমকে তার আত্মীয়র বাসা থেকে উদ্ধার করি। এরপর তার তথ্য অনুযায়ী ২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামীদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

যদিও এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত আরও দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। যাদের মধ্যে একজন প্রধান আসামি।

স্থানীয়রা বলছে, গত মাসে (২ সেপ্টেম্বর) উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের খালপাড় এলাকার নূর ইসলাম মিয়ার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী নির্যাতিত গৃহবধু এতোদিন বখাটেদের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছিলো।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংক্রান্ত আরও খবর

ফেইসবুক পেজ

error: Content is protected !!