কুড়িগ্রামে বন্যার প্রভাবে সবজির দাম বেড়েই চলেছে

  • কুড়িগ্রাম সংবাদদাতা- । প্রকাশ : সোমবার, ৬ জুলাই, ২০২০

কুড়িগ্রামে কয়েকদিন ধরে অতিবৃষ্টি আর বন্যার প্রভাব পড়েছে কাঁচাবাজারে। হঠাৎ করেই বেড়েছে কাঁচামরিচ, করলা, পটল, বেগুন ও শসাসহ বিভিন্ন সবজির দাম।

যদি ও বেড়ে গেছে সবজির দাম কিন্তু কমে গেছে মাছ, দেশী মুরগী ও বয়লার মুরগীর দাম। ‘সরবরাহ কম থাকায় বৃদ্ধি পেয়েছে সবজির আর সরবরাহ বেশী হওয়ায় কমে গেছে মাছ, দেশী মুরগী ও বয়লার মুরগীর দাম বলে জানিয়েছেন বিক্রেতারা।

রবিবার (৫ জুলাই) কুড়িগ্রামের আর্দশ জিয়া বাজার ও আর্দশ পৌরবাজার কাঁচাবাজারে সরজমিনে ঘুরে এখন চিত্র দেখা গেছে। বাজারে প্রতি কেজি সবজিতে দাম বেড়েছে ১০-২৫ টাকা।

এ ছাড়া রসুন, আদা ও মাংসসহ অন্যান্য পণ্যের দামে তেমন পরিবর্তন হয়নি।

বর্তমানে প্রতি কেজি পটল ৪০ টাকা, বেগুন প্রতি কেজি ৪০ টাকা, ঢেঁড়শ প্রতি কেজি ৪০, বরবটি প্রতি কেজি ৫০ টাকা, সশা প্রতি কেজি ৩০ টাকা, কচুঁ প্রতি কেজি ৬০ টাকা, করলা প্রতি কেজি ৬০ টাকা, কচুর ফুল প্রতি অাটি ১৫ টাকা, শাকপুতি প্রতি কেজি ৪০ টাকা মিষ্টি কুমড়া ২০- ২৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

পাইকারি আড়ত জিয়াবাজার ঘুরে দেখা যায়, অন্য সময়ের তুলনায় আড়তে মরিচ কিছুটা কম। এই বাজারে পাইকারিতে কাঁচামরিচের দাম সপ্তাহের ব্যবধানে তিনগুণ বেড়েছে।

মরিচ বিক্রেতা মো. গফুর আলী বলেন, এখন প্রতি কেজি কাঁচামরিচ বিক্রি হচ্ছে ১০০-১২০ টাকায়, যা এক সপ্তাহ আগে ছিল ৪০ থেকে ৫০ টাকা। অতিবৃষ্টির কারণে মরিচ ঝরে যাওয়ায় বাজারে এখন মরিচ কম আসছে। এ কারণে বাড়তি দামে বিক্রি হচ্ছে।

সবজি বিক্রেতারা বলেন, কুড়িগ্রামের বিভিন্ন অঞ্চলে বন্যা ও টানা বৃষ্টির কারণে সবজির দাম বাড়ছে। বন্যার কারণে কাঁচামরিচ ও সবজির সরবরাহ কম থাকায় দাম বেড়ে যাচ্ছে। বন্যার প্রভাবে কাঁচাবাজারে পণ্যের দাম বাড়তে থাকবে।

তবে ক্রেতারা অভিযোগ করেন, একই সময় কয়েক জেলায় বন্যা থাকার অজুহাত দেখিয়ে কাঁচামরিচ ও সবজির দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। এতে বাজারের খরচ বেড়ে গেছে অনেক।

শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও খবর

ফেইসবুক পেজ

নামাজের সময় সূচি

  • ফজর
  • যোহর
  • আসর
  • মাগরিব
  • ইশা
  • সূর্যোদয়
  • ভোর ৪:০৯
  • দুপুর ১২:০৯
  • দুপুর ১৬:৪৩
  • সন্ধ্যা ১৮:৪৬
  • রাত ২০:০৬
  • ভোর ৫:২৮
কপিরাইট © 2019-2020 - দেশ প্রতিদিন সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত. ।
error: Content is protected !!